৭ জুলাই পর্যন্ত টার্কিশ এয়ারলাইন্সের সকল ফ্লাইট বাতিল

১ জুলাই থেকে বাংলাদেশে ফ্লাইট চালুর অনুমতি পাওয়ার পর সাময়িকভাবে ফ্লাইট বাতিলের ঘোষণা দিল টার্কিশ এয়ারলাইনস।

এয়ারলাইনসটি জানায়, টার্কিশ সিভিল অ্যাভিয়েশনের হঠাৎ দেয়া সিদ্ধান্তে ৭ জুলাই পর্যন্ত ফ্লাইট বাতিল করা হয়েছে।

এক বিবৃতিতে তার্কিশ এয়ারলাইনস জানায়, সব যাত্রীর সুস্বাস্থ্য সুরক্ষা ও মঙ্গল আমাদের সর্বোচ্চ অগ্রাধিকার। ইতোমধ্যে বিশ্বজুড়ে করোনাভাইরাসের সংক্রমণের সার্বিক পরিস্থিতি নিবিড়ভাবে পর্যবেক্ষণ এবং এর বিস্তার রোধে বিভিন্ন পদক্ষেপ গ্রহণ করেছে তুরস্ক ও দেশটির পতাকাবাহী সংস্থা টার্কিশ এয়ারলাইনস। সম্প্রতি সংক্রমণের পরিধি নিয়ন্ত্রণে আসতে থাকা দেশগুলোতে পুনরায় বিমান চলাচলের পরিকল্পনা গৃহীত হয়। এই মর্মে ঢাকা-ইস্তানবুল রুটে ৩ জুলাই সপ্তাহে তিনটি করে ফ্লাইট চালুর প্রস্তুতি সম্পন্ন করে কর্তৃপক্ষ।

তুরস্কের সিভিল অ্যাভিয়েশন কর্তৃপক্ষের করোনা পরিস্থিতির আকস্মিকতার পুনর্বিবেচনায় চলতি সপ্তাহে যাত্রী পরিবহনে সাময়িক বিরতি প্রদানের নতুন নির্দেশনা প্রকাশিত হওয়ায় ৩ থেকে ৭ জুলাই পর্যন্ত ঢাকা-ইস্তানবুল রুটের ফ্লাইট বাতিল ঘোষণা করা হয়েছে।

টার্কিশ এয়ারলাইনস আরও জানায়, এই প্রেক্ষাপটে ৩ থেকে ৭ জুলাই সম্মানিত যাত্রীদের অবগতির জন্য জানানো যাচ্ছে যে, অনতিবিলম্বে পরবর্তী ফ্লাইটগুলোতে তারিখের অগ্রাধিকার ভিত্তিতে টিকিট স্থানান্তর করার নিরলস চেষ্টা করে যাচ্ছে এয়ারলাইনসের ঢাকা অফিস। আমরা বিশ্বাস করি, করোনা পরিস্থিতির এই সময়ের অনাকাঙ্ক্ষিত সব ঘটনাই অনিয়ম নয় বরং দুর্যোগ বিবেচনায় সাময়িক অসুবিধাকে সহনশীল ও ক্ষমাসুন্দর দৃষ্টিতে গ্রহণ করবেন।

বিমান পরিষেবা সংস্থাটি আরও জানায়, বর্তমান করোনা পরিস্থিতিতে শতাধিক যাত্রী অফিসে আগমন একই সঙ্গে ঝুঁকি ও সরকারি স্বাস্থ্যবিধির অন্তরায়। এই মর্মে পরবর্তী নির্দেশনা না দেয়া পর্যন্ত যাত্রীদের সব প্রশ্ন ও আবেদন ০১৮৪৪০৫৯৯৬১ নম্বরে কল করে ও info@aeromate.com.bd ঠিকানায় ইমেইল করতে অনুরোধ জানানো হচ্ছে। সেই সঙ্গে আন্তর্জাতিক গ্রাহকরা সপ্তাহে ৭ দিন ২৪ ঘণ্টা +৯০৮৫০৩৩৩০৮৪৯ নম্বর ও ওয়েবসাইট থেকে সেবা গ্রহণ করতে পারবেন।

Source Link

Facebook Comments

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!