মুশফিকের ক্রিম লাগানোর শব্দে ঘুম ভাঙত তামিমের



ঢাকা, ২৪ মে – হাসি-মজা আর নিজেদের মধ্যকার নানান কৌতুকে শনিবার রাতে ভক্ত-সমর্থদের জমজমাট এক লাইভ সেশন উপহার দিয়েছেন বাংলাদেশ দলের চার সিনিয়র ক্রিকেটার মাশরাফি বিন মর্তুজা, মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ, তামিম ইকবাল ও মুশফিকুর রহীম।

প্রায় দুই ঘণ্টার আড্ডায় উঠে এসেছে নানান অজানা গল্প। তার মধ্যে অন্যতম তামিম ও মুশফিকের অনূর্ধ্ব-১৯ দলে থাকাকালীন সময়ের ঘটনা। তখন রুমমেট ছিলেন তামিম ও মুশফিক। সে সময়ের মজার একটি ঘটনা জানিয়েছেন তামিম।

ছোটবেলা থেকে পরিপাটি এবং গোছালো মুশফিক। তার সঙ্গে একই রুমে থাকার সুবাদে তামিমের কখনও সকালে ঘুম থেকে ওঠা নিয়ে টেনশন করতে হয়নি। সেটি মুশফিকের ডেকে দেয়ার কারণে নয়। বরং অদ্ভুতভাবে ক্রিম লাগানোর শব্দে।

সে ঘটনার স্মৃতিচারণ করে তামিম বলেন, মুশফিকের সঙ্গে আমার প্রথম সফর অনূর্ধ্ব-১৯ দলে থাকতে। ও আমার রুমমেট ছিল। আমার তখন সকালে ওঠা নিয়ে কোন চিন্তা থাকত না। কারণ সকালে একটা অটোমেটিক এলার্ম বাজত। মুশফিক তো সবদিক থেকে একদম পারফেক্ট। ক্রিম-ট্রিম দিয়ে একদম পরিপাটি।

আরও যোগ করেন, তো আমার ঘুম ভাঙত কীভাবে জানেন? ঘুম ভাঙত হইলো, তার ক্রিম লাগানোর শব্দে (দুই হাত, মুখে তালির মতো শব্দ করে দেখান তামিম)। আচ্ছা ক্রিম লাগাইতো ঠিক আছে। তখন কিন্তু আমরা মাত্র অনূর্ধ্ব-১৯ দলে। না ওর দাঁড়ি আছে, না আমার দাঁড়ি আছে। সে আফটার শেভ লাগায় বসে থাকত। শেভ করে না কিছু করে না, আফটার শেভ লাগায়। এটা কেন করতি তুই (মুশফিক)?

মুশফিককে জবাব দিতে দেয়ার আগেই মাহমুদউল্লাহ বলেন, ও আফটার শেভের একটা ফিল নিতো। তখন মুশফিক ব্যাখ্যা করেন আফটার শেভ লাগানোর কারণ, আরেহ না না! তখন তো অল্প অল্প মোচ (গোঁফ) উঠেছিল। ওগুলো কাটলে পরে লাগাতাম আর কি।

সূত্র : জাগো নিউজ
এন এইচ, ২৪ মে



Source link

Facebook Comments

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!