ভারতে আটকে থাকা বিদেশিদের জন্য ১৮টি ফ্লাইট চালাবে এয়ার ইন্ডিয়া

দেশে লকডাউন ১৪ এপ্রিল পর্যন্ত। লকডাউন ঘোষণার আগেই আন্তর্জাতিক বিমান চলাচল বন্ধ হয়ে যায়। কিন্তু এবার ১৮টি বিশেষ বিমান চালাবে এয়ার ইন্ডিয়া। এই বিমানগুলিতে ভারতে আটকে থাকা জার্মানি, ফ্রান্স, আয়ারল্যান্ড ও কানাডার নাগরিকদের ফেরত পাঠানো হবে।

এয়ার ইন্ডিয়ার বিমান জার্মানদের পৌঁছে দেবে ফ্রাঙ্কফুর্টে এবং ফরাসিদের প্যারিসে। আয়ারল্যান্ড ও কানাডার নাগরিকদের পৌঁছে দেওয়া হবে লন্ডনে। সেখান থেকে বিমান বদলে তাঁরা নিজেদের দেশে যাবেন।

এয়ার ইন্ডিয়ার চেয়ারম্যান রাজীব বনশল জানিয়েছেন, বিভিন্ন দেশের পক্ষ থেকে ভারতের কাছে তাদের নাগরিকদের দেশে ফিরিয়ে দেওয়ার আবেদন করা হয়েছে। তাতে সাড়া দিয়েই এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। চারটি দেশের সঙ্গে এয়ার ইন্ডিয়া এই চুক্তি করেছে। এই ব্যবস্থায় জার্মানির জন্য ১০টি, কানাডার জন্য ৬টি, ফ্রান্সের জন্য ১টি এবং আয়ারল্যান্ডের জন্য ১টি বিমান যাবে। এই বিমানগুলিতে অন্য যাত্রী বা সামগ্রী যাবে না।

শুধু আন্তর্জাতিক বিমানই নয়, দেশের ভিতরে বিমান চলাচলও লকডাউনের কারণে বন্ধ রয়েছে। গত ২৬ মার্চ থেকে ১ এপ্রিল পর্যন্ত দেশে মোট ৮৫টি কার্গো বিমান চলাচল করেছে। এর মধ্যে ৬২টি চালিয়েছে এয়ার ইন্ডিয়া, বাকি ১৫‌টি ভারতীয় বায়ুসেনা এবং ৮টি বেসরকারি বিমান সংস্থা। এর সবই ওষুধ, চিকিৎসা সরঞ্জাম পৌঁছানোর জন্য চালানো হয়েছে। বৃহস্পতিবার ভারতীয় বায়ুসেনার একটি বিমানে করে লে উপত্যকায় সবজি পাঠানো হয়েছে।

লকডাউন শেষ হচ্ছে ১৪ এপ্রিল। আর তারপরেই চালু হয়ে যেতে পারে আন্তর্জাতিক বিমান চলাচল। তবে অনেক কিছু বিবেচনা করে তবেই কোনও বিমানকে বিদেশ থেকে ভারতের মাটিতে নামার অনুমতি দেওয়া হবে। বৃহস্পতিবার এমনটাই জানিয়েছেন অসামরিক বিমান চলাচল মন্ত্রী হরদীপ সিং পুরী। কোন দেশ থেকে বিমানটি আসবে, কেন আসবে এসব বিবেচনা করে তবেই অনুমতি দেওয়া হবে।

এদিন মন্ত্রী জানিয়েছেন, বিদেশে আটকে থাকা ভারতীয়দের দেশে ফিরিয়ে আনার জন্য বিমান চালানো হতে পারে লকডাউন শেষ হওয়ার পরে। বৃহস্পতিবার নয়াদিল্লিতে এক সাংবাদিক বৈঠকে মন্ত্রী বলেন, “লকডাউন শেষ হলে কারণ বিবেচনা করে আন্তর্জাতিক বিমান চলাচলের অনুমতি দেওয়া হবে। সব থেকে বেশি খেয়াল রাখা হবে কোন দেশ থেকে বিমানটি আসছে।”

দেশের মধ্যে বিমান চলাচল নিয়েও মন্তব্য করেছেন মন্ত্রী। তিনি বলেছেন, এখন ১৪ এপ্রিলের পরের বুকিং নিতে পারে বিমান সংস্থাগুলি। যদি কোনও কারণে লকডাউনের মেয়াদ না বাড়ে তবে ১৫ এপ্রিল থেকে দেশের মধ্যে বিমান চলাচল করবে।

নিউজ সোর্স – দ্যা ওয়াল ব্যুরো

Facebook Comments

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!