বিমান ভ্রমণ ২০২৩ সালের আগে ‘স্বাভাবিক’ নাও হতে পারে: এটমোস্ফিয়ার

বিশ্বজুড়ে ছড়িয়ে পরা করোনা ভাইরাসের প্রকোপের কারনে সারা বিশ্বে বিমান চলাচল প্রায় স্তবির হয়ে পড়েছে। করোনা ভাইরাস ঠেকাতে শহরের পর শহর লকডাউন ঘোষণা করা হচ্ছে। বন্ধ হয়ে যাচ্ছে যোগাযোগ ব্যবস্থাও। কখন থেকে আবার চালু হবে স্বাভাবিক যোগাযোগ ব্যবস্থা সেই ব্যাপারে এখনো কোনো তথ্য পাওয়া যাচ্ছে না। তবে বৈশ্বিক ভ্রমণ বিষয়ক বিশেষজ্ঞ গ্রুপ এটমোস্ফিয়ার রিসার্চ গ্রুপের মতে, ২০২৩ সালের আগে বিমান ভ্রমণ বা বিমান যোগাযোগ ব্যবস্থা স্বাভাবিক নাও হতে পারে।

বৈশ্বিক ভ্রমণ বিষয়ক বিশেষজ্ঞ গ্রুপ এটমোস্ফিয়ার রিসার্চ গ্রুপের তথ্য মতে, ‘করোনা ভাইরাস নিয়ন্ত্রণে’; এ রকম ঘোষণা করার পরও বিমান যোগাযোগ ব্যবস্থা স্বাভাবিক হতে আরো টানা দুই বছর সময় লাগতে পারে। অর্থাৎ ২০২৩ সাল নাগাদ বিমান যোগাযোগ ব্যবস্থা স্বাভাবিক হবে। তাদের মতে, যোগাযোগ ব্যবস্থা দ্রুত ফিরে আসার পরিবর্তে ধীরে ধীরে স্বাভাবিক হবে। অভ্যন্তরীণ ভ্রমণ ব্যবস্থা চালু হবে সবার আগে।

এটমোস্ফিয়ার রিসার্চ গ্রুপের মতে বিমান ভ্রমণ ‘স্বাভাবিক’ হওয়ার আনুমানিক সময় রেখা-

করোনা ভাইরাস নিয়ন্ত্রণ ঘোষণা করার পর প্রথম ৬ থেকে ৯ মাস করোনা ভাইরাস উত্তর ভ্রমণগুলো চালু হবে। সে সময় সাহসী ‘টিপটো ভ্রমণকারী দল’ ভ্রমণে বের হবে। এই গ্রুপে কিছু ব্যবসায়ীক ভ্রমণকারী থাকবে। এটি প্রাথমিকভাবে ব্যক্তিগত ও অবসরভিত্তিক ভ্রমণও হতে পারে। মূলত অভ্যন্তরীণ রুটে ভ্রমণ শুরু হবে। চেকআপ করার জন্য কিছু দূরবর্তী আন্তর্জাতিক ফ্লাইটও চালু হতে পারে।

তাদের মতে, ৮ থেকে ১৬ মাসের মধ্যে (২০২২ সালের মাঝামাঝি পর্যন্ত) আরো একটি গ্রুপ বিমান ভ্রমণ শুরু করবে। তাদের বলা হচ্ছে, ‘অগ্রদূত’। এই গ্রুপটির নেতৃত্ব দিবে ব্যবসায়িক ভ্রমণকারীরা। পাশাপাশি থাকবে মধ্য থেকে উচ্চপর্যায়ের মানুষগণ। যাদের বছরে আয় এক লাখ ২৫ হাজার মার্কিন ডলার এবং তার চেয়ে বেশি। মূলত দূরপাল্লার আন্তর্জাতিক ফ্লাইটগুলো তখন চালু হবে।

এটমোস্ফিয়ার রিসার্চ গ্রুপের তথ্য মতে, ১২ থেকে ১৮ মাসের মধ্যে ভ্রমণ করতে শুরু করবে ‘নিয়ার-নরমাল ভলিউম অব বিজনেস ট্রাভেলেরস’ গ্রুপটি। ব্যবসায়িক প্রিমিয়াম কেবিনে করে তারা ভ্রমণ করবেন। ২০২২ সালের শেষের দিকে ব্যবসায়িক ভ্রমণ মূলত স্বাভাবিক অবস্থায় ফিরে আসবে। তাদের তথ্য মতে, ১৬ থেকে ২৪ মাসের (২০২২ সালের পরে) মধ্যে বিমানের সব ফ্লাইট চালু হবে। যদি করোনা ভাইরাস ২২ সালের আগে নিয়ন্ত্রণে আসে।

নিউজ সোর্স – কালের কণ্ঠ

Facebook Comments

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!