বিমানের বিশেষ ফ্লাইটে ঢাকা ছাড়লেন ১১৪ জাপানি নাগরিক, দ্বিতীয় ফ্লাইটটি যাবে ৩০ এপ্রিল

করোনা ভাইরাসের কারণে বাংলাদেশ ও জাপানে আটকে পড়াদের জন্য বিশেষ ফ্লাইট পরিচালনা করছে বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইনস। এই ফ্লাইট দুটি পরিচালনা করা হচ্ছে বিমানের অত্যাধুনিক বোয়িং ৭৮৭-৮ এবং ৭৮৭-৯ ড্রিমলাইনার উড়োজাহাজ দিয়ে।

জানা গেছে, বাংলাদেশ থেকে ১১৪ জন যাত্রী নিয়ে আজ মঙ্গলবার (২৮ এপ্রিল) সকাল সোয়া ৯ টায় হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর থেকে জাপানের নরিতা বিমানবন্দরের উদ্দেশে ছেড়ে গেছে ২৭১ আসনের বোয়িং ৭৮৭-৮ ড্রিমলাইনার ‘সোনারতরী’। এটি আজ রাত সাড়ে ১১টায় ঢাকায় ফেরার কথা রয়েছে।

এদিকে, আগামী ৩০ এপ্রিল রাত সাড়ে ৯ টায় ঢাকা থেকে জাপানের টোকিওতে নারিতা আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের উদ্দেশে একটি ২৯৮ আসনের বোয়িং ৭৮৭-৯ ড্রিমলাইনার ‘অচিন পাখি’ ছেড়ে যাবে। এই ফ্লাইটে জাপানে আটকে পড়া বাংলাদেশিদের নিয়ে আসা হবে বলে জানা গেছে।

বিমান সূত্রে জানায়, এই বিশেষ ফ্লাইট দুটির জন্য বিমান ভাড়া করেছে জাপান দূতাবাস এবং জাপান-বাংলাদেশ চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রিজ। এই বিশেষ ফ্লাইটে ইকনমি ক্লাসের জন্য এক লাখ ১০ হাজার এবং বিজনেস ক্লাসের জন্য এক লাখ ৪০ হাজার টাকা ভাড়া নির্ধারণ করা হয়েছে। এই বিষয়ে বিমানের ওয়েব সাইটে বিস্তারিত জানা যাবে।

জানতে চাইলে বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইনসের উপ মহাব্যবস্থাপক (জনসংযোগ) তাহেরা খন্দকার বলেন, ‘২৮ এবং ৩০ এপ্রিল ঢাকা-নারিতা রুটে বিমানের দুটি চার্টার্ড ফ্লাইট ভাড়া করেছে ঢাকাস্থ জাপান দূতাবাস এবং জাপান বাংলাদেশ চেম্বার অব কমার্স। আজ মঙ্গলবারের ফ্লাইটে যাওয়া এবং আসা দুইবারই যাত্রী আছে।

অন্যদিকে ৩০ এপ্রিলের ফ্লাইটটিতে শুধু জাপান থেকে যাত্রী আনা হবে। এই দুটি গন্তব্যে বোয়িং ৭৮৭-৮ এবং ৭৮৭-৯ ড্রিমলাইনার উড়োজাহাজ দিয়ে ফ্লাইট পরিচালনা করা হচ্ছে।’

Facebook Comments

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!