বিমানবন্দরে তাপমাত্রা পরীক্ষা বাধ্যতামূলক হবে কি?

করোনা ভাইরাস মহামারির কারণে বিমানবন্দর বন্ধ হয়েছে এবং এয়ারলাইন্সগুলোর উড়োজাহাজ ডানা গুটিয়ে অলস সময় পার করছে। প্রশ্ন উঠেছে এই মহামারি কেটে গেলে ভবিষ্যতে বিমানবন্দরগুলোতে তাপমাত্রা পরীক্ষা বাধ্যতামূলক করা উচিত কি না।

চীনের উহানে করোনা ভাইরাস দেখা দেয়ার পর থেকে মূলত থার্মাল ইমেজিং ব্যবস্থা চালু করে যাত্রীদের শরীরের তাপমাত্রা পরীক্ষার বিষয়টি চালু হয় এশীয় ও মধ্যপ্রাচ্যের বিমানবন্দরগুলোতে।

শুরুর দিকে সীমানা প্রহরায় নিয়োজিত কর্মী ও ইমিগ্রেশন কর্মীরা চীন থেকে আসা বিমানের যাত্রীদের তাপমাত্রা পরীক্ষা করতে থার্মাল ইমেজিং ক্যামেরার ব্যবহার শুরু করেন। পরে এই কোভিড ১৯ এর প্রাদুর্ভাব ঠেকাতে বিশ্বের সব বিমানবন্দরে এই ব্যবস্থা গ্রহণ করে কর্তৃপক্ষ।

তাই গোটা বিশ্বে এই মহামারিকে গুরুত্বের সাথে বিবেচনা করে অনেক বিমানবন্দর ব্যবস্থাপনায় নিয়োজিত কর্তৃপক্ষ ভবিষ্যতেও এই রেওয়াজ চালুর ব্যাপারে জোর দাবী তুলছে।

টাইমস ম্যাগাজিনের সাম্প্রতিক এক সাক্ষাৎকারে হিথরো বিমানবন্দরের সিইও জন হল্যান্ড-কায়ে মত দিয়েছেন এয়ারপোর্টে থার্মাল স্ক্রিনিং এখন রাখাটা অত্যন্ত জরুরি বিষয় হওয়া দরকার।

তিনি বলেন, “যদিও এই থার্মাল স্ক্যানিং দিয়ে আপনারা করোনা বা অন্য কোন ভাইরাস পরীক্ষা করতে পারবেন না তারপরও বিশ্বের কোন এয়ারপোর্টে এই যন্ত্রটি দিয়ে আসা যাত্রীরা তাদের গন্তব্যে এসে যদি থার্মাল ইমেজিং দেখতে না পান তবে এ নিয়ে তাদের মধ্যে শংকা দেখা দিতে পারে।

করোনা ছড়িয়ে পড়ার শুরুতে ইংল্যান্ডর বিমানবন্দরগুলো এই থার্মাল ইমেজিংয়ের ব্যবস্থা রাখেনি যা নিয়ে যাত্রীদের মধ্যে অনেক প্রশ্ন উঠেছিল। এ কারণে আমার মনে হয় সব বিমানবন্দরই এটা নিয়ে ভাবতে পারে।

সাক্ষাৎকারে হল্যান্ড-কায়ে এ ব্যাপারে একটি বৈশ্বিক প্লাটফর্ম গড়ে তোলার আহ্বান জানান। কারণ তিনি মনে করেন এটি যাত্রীদের স্বাস্থ্যঝুঁকির প্রাথমিক ধারণা দেয় এবং এটির কারণে পরবর্তীতে যাত্রীরা আকাশে উড়বার ক্ষেত্রে পুনঃআস্থা ও আত্নবিশ্বাস ফিরে পাবেন। এর মাধ্যমে বিমানসেবায় একটি নতুন দিগন্তের সূচনা হবে বলে মনে করেন তিনি।

তবে এভিয়েশনভিত্তিক সাংবাদিক মার্ক ফিনলে এ ব্যাপারে একটু ভিন্নমত পোষণ করেছেন। তার মত থার্মাল ইমেজিং ক্যামেরা যাত্রীদের বিমানবন্দরের উপর আস্থা বাড়াতে বাড়ে তবে তা করোনা ভাইরাসের কোন রোগ ধরতে পারে না। যার কারণে বিশ্বের সব বিমানবন্দর এই থার্মাল ইমেজিং ক্যামেরা রাখবে বলে তার মনে হয়না।

এক্ষেত্রে এই সাংবাদিক পাসপোর্টে যাত্রীর নেওয়া টিকা বা ভ্যাসকিন এবং রোগবালাইয়ের তালিকা থাকলে তা আরো কার্যকর ভূমিকা রাখতে পারে বলে মনে করেন তিনি।

আকাশ যাত্রা

Facebook Comments

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!