বাংলাদেশিদের ভিসা বন্ধ করেছে দক্ষিণ কোরিয়া

নতুন করে করোনা সংক্রমণ রোধে বাংলাদেশের নাগরিকদের ভিসা বন্ধ করে দিয়েছে দক্ষিণ কোরিয়া। এ সিদ্ধান্তের কারণে অনেক প্রবাসী দেশে আটকা পড়েছেন। এতে উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন প্রবাসী বাংলাদেশিরাও। তবে এটিকে সাময়িক সিদ্ধান্ত বলছে সিউলের বাংলাদেশ দূতাবাস।

মাঝে করোনার দাপট কিছুটা কমলেও আবারো নতুন করে সংক্রমিত হচ্ছে দক্ষিণ কোরিয়া। সিউলের পাশাপাশি অন্যান্য শহরেও ছড়িয়ে পড়েছে কোভিড নাইন্টিন। নতুন করে আক্রান্তদের অর্ধেকই বাইরের দেশ থেকে আসা নাগরিকদের মাধ্যমে ছড়িয়েছে বলে জানিয়েছে কর্তৃপক্ষ।

নতুন আক্রান্তদের বেশিরভাগই বাংলাদেশ ও পাকিস্তানের নাগরিক বলে জানিয়েছে দক্ষিণ কোরিয়া। সংক্রমণ রোধে সতর্কতামূলক পদক্ষেপ হিসেবে গেলো মাসে বাংলাদেশ ও পাকিস্তানের সঙ্গে ভিসা ও ফ্লাইট স্থগিতের সিদ্ধান্ত নেয় দক্ষিণ কোরিয়া। এ অবস্থায় দেশে আসা অনেকেই আটকা পড়েছেন। উদ্বিগ্ন প্রবাসী বাংলাদেশিরা।

প্রবাসী সাংবাদিক ওমর ফারুক হিমেল জানান, সাম্প্রতিক সময় যে চার্টাড বিমানটি দক্ষিণ কোরিয়া আসে, সেটিতে করোনা রোগী পাওয়া যায়। সে বিষয়টি দক্ষিণ কোরিয়ার ইংরেজি এবং কোরিয়ার গণমাধ্যমে ফলাও করে প্রচার হয়েছে।

তবে এটি একটি সাময়িক সিদ্ধান্ত বলে জানিয়েছে সিউলের বাংলাদেশ দূতাবাস। রাষ্ট্রদূত আবিদা ইসলাম জানান, পররাষ্ট্র দফতরের সঙ্গে যোগাযোগ অব্যাহত রেখেছে বাংলাদেশ দূতাবাস।

সিউল বাংলাদেশ দূতাবাসের রাষ্ট্রদূত আবিদা ইসলাম জানান, সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তা আমাকে জানিয়েছে কড়াকড়ির এই বিষয়টি সাময়িক একটি বিষয়। করোনা পরিস্থিতি উন্নতি হলে এই বিষয়গুলো পুনবিবেচনা করবে।

করোনা সংক্রমণের শুরুতে চীনের পরপরই সবচেয়ে বেশি আক্রান্ত হয় দক্ষিণ কোরিয়ায়। স্বাস্থ্যবিধি নিশ্চিত করাসহ তাৎক্ষণিক বিভিন্ন পদক্ষেপের মাধ্যমে করোনা সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণে আনতে সক্ষম হয় দেশটি।

Source Link

Facebook Comments

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!