বল টেম্পারিংকে বৈধতা নয়, তবে ভিন্ন এক ফর্মুলা নিয়ে হাজির ওয়ার্ন -Deshebideshe


ক্যানবেরা, ০৬ মে – বল টেম্পারিংকে বৈধতা দেয়া না দেয়া নিয়ে তুমুল বিতর্ক চলছে ক্রিকেট দুনিয়ায়। থুতু কিংবা লালার ব্যবহার করে বলের উজ্জ্বলতা বাড়ানোর এতদিনের অভ্যাস পরিবর্তন করার জন্যই মূলতঃ বল টেম্পারিংকে বৈধতা দেয়ার প্রস্তাব তুলেছে আইসিসি। এখন এ নিয়ে চলছে তুমুল বিতর্ক। কেউ পক্ষে, কেউ বা বিপক্ষে।

তবে, এ পর্যায়ে এসে নিজস্ব একটা ফর্মুলা বর্ণনা করলেন অস্ট্রেলিয়ার স্পিন কিংবদন্তি শেন ওয়ার্ন। তিনি আইসিসির প্রতি পরামর্শ দিয়ে বলেন, ‘বল টেম্পারিংকে বৈধতা দেয়ার প্রয়োজন নেই। একটু ভারি বল ব্যবহার করলেই আলোচ্য সমস্যার সমাধান সম্ভব।’

শেন ওয়ার্নের মতে, বল যদি একটু ভারি হয়, তাহলে পেসাররা সেটাকে ইচ্ছেমত সুইং, রিভার্স সুইং করাতে পারবে। এতে করে থুতু কিংবা লালার ব্যবহারও করা লাগলো না, কৃত্রিম উপায়ে বলের উজ্জ্বলতা বাড়ানোর চেষ্টাও করা লাগবে না। স্বাস্থ্য সুরক্ষার বিষয়টিও নিশ্চিত করা যাবে।

করোনাভাইরাসের কারণেই বল টেম্পারিংকে বৈধতা দেয়ার প্রশ্ন আসছে। বলে থুতু কিংবা লালা ব্যবহার করে উজ্জ্বলতা বাড়ানোর চেষ্টা করা হলে, তাতে জীবানু সংক্রমণ হতে পারে। কোভিড-১৯ পজিটিভ কেউ এর মধ্যে থেকে থাকলে তো কথাই নেই। স্বাস্থ্য সুরক্ষার বিষয়টা চিন্তা করেই পুরনো অভ্যাস থুতু কিংবা লালা ব্যবহারে নিষেধাজ্ঞা জারি করতে যাচ্ছে আইসিসি।

অস্ট্রেলিয়ার বল নির্মাতা প্রতিষ্ঠান কোকাবুরা এরই মধ্যে জানিয়েছে, তারা লাল বলে এমন মোম ব্যবহার করতে যাচ্ছে, যেটা দিয়ে অনায়াসেই বলের উজ্জ্বলতা বাড়ানো সম্ভব। থুতু কিংবা লালার ব্যবহারের প্রয়োজনই হবে না।

শেন ওয়ার্ন বলেন, ‘আমরা কি পারি না বলের একটা পাশ একটু ভারি করে দিতে। যাতে বোলাররা এমনিতেই সুইং করাতে পারবে বলকে। যেমন টেপ টেনিস বা লন টেনিস বলের মত। আমি নিশ্চিত নই যে আপনি কি ওয়াসিম আকরাম আর ওয়াকার ইউনুসের মত বলের প্রান্তগুলোকে হালকা করে তুলতে চান কি না। যা ফ্ল্যাট উইকেটেও পেসারদেরকে টেস্টের দ্বিতীয় কিংবা তৃতীয় দিন থেকে দারুণ ফল দিতে শুরু করতো।’

পাকিস্তান গ্রেট ওয়াসিম আকরাম এবং ওয়াকার ইউনুসরা সাধারণত বলের একপ্রান্ত ঘঁষে উজ্জ্বল করে ফেলতেন এবং অন্যপ্রান্তকে রাখতেন অনুজ্জ্বল। এতে করে বলের একপ্রান্ত হতো ভারি। যার ফলে ইচ্ছেমত রিভার্স সুইং করানো যেতো। ওয়াসিম আকরামকে এ কারণে বলা হতো রিভার্স সুইংয়ের মাস্টার।

শেন ওয়ার্ন এ কারণেই মনে করেন একটি ভারি বলই পারে বল টেম্পারিংয়ের মত অবৈধ কাজকে বৈধতা দেয়ার চিন্তা থেকে সরিয়ে আনতে। আইসিসি চাইলে এ বিষয়টা নিয়ে পর্যালোচনা করতে পারে।

সূত্র : জাগো নিউজ
এন এইচ, ০৬ মে





Source link

Facebook Comments

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!