জালাল সরকারের আর দেশ দেখা হলো না

তার শেষ ইচ্ছা ছিল দেশে ফেরার। কিন্তু সেই ইচ্ছে আর পূরণ হলো না। মৃত্যুর আগে দেশে ফিরতে পারলেন না তিনি। বলা হচ্ছে জালাল সরকার নামে এক প্রবাসীর কথা। গত ২৬ বছর ধরে মালয়েশিয়ায় ছিলেন। ক্যানসারে আক্রান্ত হয়ে সেদেশের একটি হাসপাতালে চিকিৎসা নিচ্ছিলেন জালাল সরকার। এ সময়ে তার পাশে ছিলেন না স্বজনেরা। তার বড় ইচ্ছে ছিল দেশে ফেরার। কিন্তু করোনা মহামারির কারণে আন্তর্জাতিক ফ্লাইট বন্ধ থাকায় দেশেও ফিরতে পারেননি। 

মালয়েশিয়ায় বাংলাদেশ হাই কমিশনের উদ্যোগে কয়েকটি বিশেষ ফ্লাইট পরিচালিত হলেও সেই ফ্লাইটে ফেরার সুযোগ পাননি তিনি। গত তিন মাস ধরে মানবেতর দিন কাটাচ্ছিলেন ৫৬ বছর বয়সী জালাল। অবশেষে শুক্রবার (১৭ জুলাই) মালয়েশিয়াতেই মারা গেলেন তিনি। জালাল সরকারের ছেলে আনিসুর রহমান জানান, শুক্রবার সকালে তার বাবা মালয়েশিয়ায় মারা গেছেন। কুমিল্লার দাউকান্দিতে জালালের পরিবার এখন তার লাশ ফেরানোর অপেক্ষা করছেন।    

গত ৪ জুলাই বাংলাদেশের একটি গণমাধ্যমের সঙ্গে আলাপে দেশে ফেরার আকুতি জানিয়েছিলেন জালাল সরকার। বারবার বলেছিলেন ‘মরার আগে দেশে ফিরতে পারবো তো’। দেশে ফেরার কথা বলতে বলতে কাঁদতে থাকেন। প্রধানমন্ত্রীর কাছে অনুরোধ, মানবিক দৃষ্টিতে আমাকে দেশে ফেরার সুযোগ করে দিন।’

Source Link

Facebook Comments

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!