জামানত ছাড়াই তিন লাখ টাকা ঋণ পাবেন প্রবাসী

প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসে বিপর্যস্ত পুরো বিশ্ব। এই করোনা দুর্যোগের শিকার হয়েছেন বিদেশে থাকা লাখ লাখ বাংলাদেশি প্রবাসী। দিনের পর দিন লকডাউন তাদের বেঁচে থাকাই কঠিন করে তুলছে। কর্মহীন হয়ে পড়ায় অনেকে মানবেতর জীবনযাপন করছেন।

এমন পরিস্থিতিতে মধ্যপ্রাচ্যের দেশ সৌদি আরব কুয়েত, বাহরাইনসহ বেশ কয়েকটি দেশ থেকে প্রবাসীদের নিজ নিজ দেশে ফিরিয়ে নেওয়ার জন্য চাপ বাড়ছেই। প্রবাসীকল্যাণ মন্ত্রণালয় সূত্রে জানা গেছে, দুই থেকে তিন লাখ প্রবাসীকে দেশে ফিরে আসতে হতে পারে মনে করছেন মন্ত্রণালয়ের এক কর্মকর্তা। এসব প্রবাসী যেন দেশে ফিরে আসার পর কোনো ধরনের কষ্টে না থাকেন বা বেকার না থাকেন,  সেজন্য সহজ শর্তে তাদেরকে মধ্যে ঋণ দেওয়া হবে বলে জানান এই কর্মকর্তা।

প্রবাসীকল্যাণ সচিব ড.আহমদ মুনিরুছ সালেহীন বলেন,‌ যেসব প্রবাসীর রেমিট্যান্সের টাকায় দেশের অর্থনীতি চাঙ্গা, তাদের জন্য সহজ শর্তে ঋণ দেওয়ার ব্যবস্থা করা হয়েছে। প্রবাসীকল্যাণ ব্যাংক থেকে এসব ঋণ দেওয়া হবে। প্রবাসীরা যেন কোনো ধরনের সংকটের মধ্যে না পড়েন সেজন্য সরকারের পক্ষ থেকে বিশেষ প্রণোদনা প্যাকেজ রয়েছে।

ড. আহমেদ মুনিরুছ সালেহীন বলেন, সহজ শর্তে এই টাকা থেকে তাদেরকে ঋণ দেওয়া হবে। যেন তারা টাকাগুলো দিয়ে দেশে কিছু একটা করতে পারেন। প্রাথমিকভাবে ২-৫ লাখ টাকা পর্যন্ত ঋণ দেওয়া হবে। সুদের হার ২ থেকে ৫ শতাংশের মধ্যে। আর কোনো জামানত ছাড়াই তিন লাখ টাকা পর্যন্ত ঋণ নিতে পারবেন তারা।

ঋণ প্রদানের পুরো বিষয়টি তদারকি করবে প্রবাসী কল্যাণ ব্যাংক। ঋণ দেওয়া ও আদায়ের বিষয়টি নিয়ন্ত্রণ করবেন তারাই। এ কাজে স্বচ্ছতার জন্য ঋণ গ্রহীতাকে অবশ্যই বিদেশ থেকে ফেরত আসার প্রমাণ দিতে হবে বলে জানান ড. সালেহীন।

Source Link

Facebook Comments

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!