চার্টার্ড ফ্লাইটে ক্রিকেটারদের এনে হউক বিশ্বকাপ: ব্র্যাড হগ

করোনা ভাইরাসের কারনে বিশ্ব ক্রীড়াঙ্গন বন্ধ। দ্বিপাক্ষীক সিরিজ, টুর্নামেন্ট সবকিছুই বন্ধ। বর্তমানের এই ভয়াবহ পরিস্থিতি থেকে পৃথিবী কবে মুক্তি পাবে, তা কেউই জানে না। তাই ভবিষ্যতের টেনিস-ফুটবল-ক্রিকেট ইভেন্টগুলো হুমকির মুখে। সেই তালিকায় আছে টি-২০ বিশ্বকাপ। টি-২০ বিশ্বকাপ নিয়ে শঙ্কা তৈরি হয়েছে। অনেকেই নানা মত দিচ্ছেন। এবার নিজ দেশের টি-২০ বিশ্বকাপ নিয়ে অভিমত তুলে ধরলেন অস্ট্রেলিয়ার সাবেক চায়নাম্যান স্পিনার ব্র্যাড হগ। তিনি যেকোন উপায়েই হোক বিশ্বকাপ আয়োজনের পক্ষে। প্রয়োজনে চার্টার্ড ফ্লাইটে ক্রিকেটারদের এনে হলেও বিশ্বকাপ অনুষ্ঠিত হবার পরামর্শও দিলেন তিনি।

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম টুইটারে এক ভিডিও বার্তায় হগ বলেন, ‘আমরা সবাই জানি, এই মুহূর্তে কোনো বাণিজ্যিক ফ্লাইট নেই। এক দেশ থেকে অন্য দেশে যাওয়া যাচ্ছে না। এই পরিস্থিতি পাঁচ ছয় মাস অব্যাহত থাকলে বিশ্বকাপ আয়োজনের জন্য আমাদের চার্টার্ড ফ্লাইট ব্যবহার করতে হবে। চার্টার্ড ফ্লাইটে ক্রিকেটারদের এনে হলেও বিশ্বকাপ আয়োজন করা যেতে পারে। অবশ্য তার আগে যারা ফ্লাইটে উঠবে, তাদের সবার করোনাভাইরাস পরীক্ষা করে নিতে হবে।’

অস্ট্রেলিয়ায় পৌছানোর পরও ক্রিকেটারদের কোয়ারিন্টানে থাকা উচিত হবে বলেও মনে করেন হগ, ‘অস্ট্রেলিয়া পৌঁছার পর ক্রিকেটাররা দুই সপ্তাহের জন্য কোয়ারেন্টিনে থাকবে। মেয়াদ যখন শেষ হবে, তাদের আবারও পরীক্ষা করাতে হবে। যদি তারা পরীক্ষায় নেগেটিভ হয়, তাহলে তারা অনুশীলন করতে পারবে।’
করোনাভাইরাসের ছোঁয়া থেকে রক্ষা পেতে সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখার পরামর্শ বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার। মাঠে খেলোয়াড়দের এটি নিয়ে কোন সমস্যা হবে না বলে মনে করেন হগ, ‘সামাজিক দূরত্ব ক্রিকেটে কোনো সমস্যা নয়। কারণ মাঠে খেলোয়াড়রা সবসময়ই পরস্পর থেকে দূরেই থাকে। উইকেট শিকারের পর খেলোয়াড়রা কাছে আসে। সেটি না হয়, খেলোয়াড়রা করলো না। একটু দূর থেকে থেকেই উল্লাস করলো।’

বর্তমান পরিস্থিতি অব্যাহত থাকলে, অনেকেই টি-২০ বিশ্বকাপ বাতিলের পক্ষে। কিন্তু হগ কোনভাবেই এটি মানতে রাজি নন। তিনি বলেন, ‘অনেকেই বলছে, অস্ট্রেলিয়ার টি-২০ বিশ্বকাপ বাতিল বা পরিবর্তিত সূচিতে হতে পারে। আমি তাদের সাথে একমত নই। তবে পরিস্থিতি স্বাভাবিক না হলে আমাদের অবশ্যই বিকল্প পথ খুঁজে বের করতে হবে। কিন্তু সঠিক সময়ে বা আগ-পিছ করে টুর্নামেন্ট করা উচিত।’
রুদ্ধদার স্টেডিয়ামেও বিশ্বকাপ হতে পারে, এমন মন্তব্যও অনেকে করেছেন। এই মতামতের সাথেও একমত নন হগ, ‘দর্শকরা ক্রিকেটের প্রাণ। তাই দর্শকদের কথাও চিন্তা করতে হবে। অনেক দর্শক আছে যারা ক্রিকেটের জন্য উদগ্রীব হয়ে থাকেন । প্রিয় ক্রিকেটারদের খেলা মাঠে দেখতে চায় ভক্তরা।’

নিউজ সোর্স – ঢাকা টাইমস

Facebook Comments

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!