বিমানবন্দরেই তৈরি ৪০০ বেডের কোয়ারেন্টাইন সেন্টার

আর ভুল নয়। হাতে সময় থাকতে থাকতে এবার তাই আগে ভাগেই সবকিছুই তৈরি করতে রাখতে চাইছে কলকাতা বিমান বন্দর কর্তৃপক্ষ। আগামী বৃহস্পতিবার থেকে কলকাতা বিমানবন্দর চালু হবে৷ তার আগেই কলকাতা বিমানবন্দরের পুরানো টার্মিনালে তৈরি করা হচ্ছে কোয়ারেন্টাইন সেন্টার৷

বিমানবন্দর সূত্রের খবর, বিমান চলাচল শুরু হওয়ার পর যে সকল যাত্রীর করোনার লক্ষণ দেখা যাবে তাঁদের ওই কোয়ারেন্টাইন সেন্টারে রাখা হবে৷ ৪০০ বেডের কোয়ারেন্টাইন সেন্টার তৈরি করা হচ্ছে কলকাতা বিমানবন্দরের পুরোনো টার্মিনালে৷ কোয়ারেন্টাইন সেন্টারে সমস্ত রকম ব্যবস্থা রাখা হচ্ছে। যাতে কোন যাত্রীর অসুবিধে না হয়।

লকডাউনের মধ্যেই সব ধরনের স্বাস্থ্যবিধি মেনে সোমবার ভোর থেকেই চালু হয় অন্তর্দেশীয় বিমান পরিষেবা। বিমানবন্দরে সামাজিক দূরত্ব মেনে যাত্রীদের থার্মাল স্ক্রিনিং করা হয়। তবে বিমানবন্দরে এসে অনেকেই জানতে পারেন তাঁদের উড়ান বাতিল করা হয়েছে। শুধু দিল্লি বিমানবন্দর থেকেই এদিন ৮২টি উড়ান বাতিল করা হয়েছে।

করোনা মোকাবিলায় লকডাউনের জেরে ভারতে সাধারণ বিমান পরিষেবা বন্ধ রাখা হয়েছিল। সোমবার থেকে চালু হয়েছে অন্তর্দেশীয় বিমান পরিষেবা। দুই মাসের দীর্ঘ অপেক্ষা শেষে এদিন ভোর থেকেই দেশজুড়ে ঘরোয়া বিমান পরিষেবা চালু হয়ে যায়। লকডাউনের জেরে দেশের বিভিন্ন প্রান্তে অনেকে আটকে পড়েছিলেন।

ঘরোয়া বিমান পরিষেবা চালু হতেই আটকে পড়া মানুষজন গন্তব্যে ফিরবেন বলে আগে ভাগে টিকিট কেটে রেখেছিলেন। তবে বেশ কিছু বিমান বাতিল ঘোষণায় রীতিমতো হতাশ যাত্রীরা।

কিন্তু কলকাতা বিমানবন্দরের এমন পদক্ষেপ রীতিমতো সকলের নজর কেড়েছে। এখন দেখার বিষয় কতটা সক্ষম ভাবে নিজেদের কর্তব্য পালন করতে পারে রাজ্য ও বিমান বন্দর কর্তৃপক্ষ।

Facebook Comments

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!