করোনা ভাইরাস: ১৫ এপ্রিল পর্যন্ত বাংলাদেশের অন-অ্যারাইভাল ভিসা বন্ধ

নোভেল করোনা ভাইরাসের সংক্রমণের কারণে সৃষ্ট পরিস্থিতিতে আগামী ১৫ এপ্রিল পর্যন্ত বিদেশি নাগরিকদের জন্য অন-অ্যারাইভাল ভিসা বন্ধ করেছে বাংলাদেশ। এছাড়াও ভিসা সংক্রান্ত আরও কিছু বিষয় নিয়ে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় থেকে এই নির্দেশনা জারি করা হয়। গত বুধবার (২৫ মার্চ) এ সংক্রান্ত নির্দেশনা জারি করা হয়।

স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সহকারী সচিব মনিরা হক স্বাক্ষরিত নির্দেশনায় বলা হয়, গত ১ মার্চ থেকে যে সব ভ্রমণকারী ইউরোপীয় ইউনিয়নভুক্ত অঞ্চল এবং ইরানে বসবাস করেছেন বা ভ্রমণ করেছেন তারা আগামী ১৫ এপ্রিল (২০২০) পর্যন্ত বাংলাদেশে প্রবেশ করতে পারবেন না। তবে ইউরোপীয় ইউনিয়ন এবং ইরানের নাগরিক যারা ২৯ ফেব্রুয়ারি থেকে ওই সব এলাকার বাইরে ছিলেন তারা বৈধ ভিসা থাকা সাপেক্ষে বাংলাদেশ ভ্রমণ করতে পারবেন। বৈধ ভিসাধারী বিদেশি নাগরিক বা যারা নতুন ভিসার জন্য আবেদন করবেন তাদেরকে সর্বশেষ ৭২ ঘণ্টার মধ্যে ইস্যু করা কোভিড-১৯ লক্ষণ মুক্ত মর্মে চিকিৎসকের সনদ জমা দিতে হবে। বাংলাদেশে আগমনের সময় ওই সনদ ইমিগ্রেশন কাউন্টারে প্রদর্শন করতে হবে।

বাংলাদেশে অবস্থিত বিদেশি দূতাবাসগুলোতে কর্মরত কূটনৈতিক, অফিশিয়াল এবং লেইসেজ প্যাসার পাসপোর্টধারী ব্যক্তিরা এবং তাদের পরিবারের সদস্যরা উল্লেখিত নিষেধাজ্ঞার আওতা বহির্ভূত থাকবেন। তবে তাদের ইমিগ্রেশন কাউন্টারে চিকিৎসকের সনদ প্রদর্শন করতে হবে। বাংলাদেশে আগমনের পর তাদের সেলফ কোয়ারেন্টিনে থাকতে হবে।

করোনা ভাইরাস আক্রান্ত যে কোনও দেশ থেকে বাংলাদেশি বা বিদেশি নাগরিকের বাংলাদেশে আসার ক্ষেত্রে আগমনের পরে দুই সপ্তাহ কোয়ারেন্টিনে থাকতে হবে। এন্ট্রি পোর্টের স্বাস্থ্য কর্মকর্তারা সেলফ কোয়ারেন্টিন বা সরকার পরিচালিত প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টিনে থাকার বিষয়টি নির্ধারণ করবেন।

বর্তমানে প্রচলিত বিধি অনুযায়ী জাহাজের নাবিকরা ৭২ ঘণ্টার জন্য অন-অ্যারাইভাল ভিসা নিয়ে বাংলাদেশে প্রবেশ করতে পারবেন। তারা এয়ারপোর্ট থেকে কর্মস্থল এবং কর্মস্থল থেকে এয়ারপোর্ট যাতায়াত ব্যতীত দেশের অভ্যন্তরে অন্য কোথাও অবস্থান করতে পারবেন না। তাদেরও চিকিৎসকের সনদ এন্ট্রি পোর্টের ইমিগ্রেশন কাউন্টারে প্রদর্শন করতে হবে। পরবর্তী নির্দেশ না দেওয়া পর্যন্ত এই নির্দেশনাগুলো বলবৎ থাকবে বলে নির্দেশনায় উল্লেখ করা হয়েছে।

নিউজ সোর্স – বাংলা ট্রিবিউন

Facebook Comments

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!