আইসিসির নির্দেশনার স্বচ্ছতা চান সাকিব



ঢাকা, ২৪ মে- করোনাভাইরাস পরিস্থিতির কারণে গত মার্চ থেকেই বন্ধ মাঠের ক্রিকেট। তবে বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসানের খেলা বন্ধ গত অক্টোবর। জুয়ারিদের সঙ্গে যোগাযোগের তথ্য গোপন করায় এক বছরের নিষেধাজ্ঞা ভোগ করছেন সাকিব।

ফলে অন্যান্য ক্রিকেটাররা যখন শুধুমাত্র করোনা পরিস্থিতি স্বাভাবিক হওয়ার অপেক্ষায়, তখন সাকিবকে ভাবতে হচ্ছে নিজের নিষেধাজ্ঞার সময়ের ব্যাপারেও। কেননা করোনা পরিস্থিতি স্বাভাবিক হলেও, ২৯ অক্টোবরের আগে মাঠে নামতে পারবেন না তিনি।

এটি মেনে নিয়েছেন সাকিবও। তাই তিনি এখন দিন গুনছেন দুইভাবে। দেশের শীর্ষস্থানীয় দৈনিক পত্রিকাকে দেয়া সাক্ষাৎকারে এ বিষয়ে কথা বলেছেন সাকিব। জানিয়েছেন নিষেধাজ্ঞার বিষয়টি সবসময়ই থাকে তার চিন্তায়।

সাকিবের ভাষ্য, আমি আসলে দুইভাবে দিন গুনছি। প্রথমত, করোনা পরিস্থিতি কবে স্বাভাবিক হবে আর কবে আমার নিষেধাজ্ঞা শেষ হবে। আমি কঠিন সময়ের মধ্য দিয়ে যাচ্ছি। যদিও এখন কোথাও কোন ক্রিকেট হচ্ছে না। আমি জানি, যদি আগামীকাল ক্রিকেট শুরুও হয়, তাও আমি খেলতে পারব না।

তিনি আরও যোগ করেন, আপনাকে যখন কোনকিছু থেকে বিরত থাকতে বলা হয়, তখন অন্য কেউ এ ব্যাপারে কথা বলুক বা না বলুক, আপনার ভেতরে ঠিকই বিষয়টা চলতে থাকে। আপনি নিজেই বলতে পারেন আপনার ভেতরে আসলে কী চলছে।

তবে সাকিব খেলতে পারুক বা না পারুক, খুব শিগগিরই হয়তো ফিরতে চলেছে মাঠের ক্রিকেট। এরই মধ্যে অনুশীলন শুরু করেছে ইংল্যান্ডের পেসাররা। ক্রিকেটের সর্বোচ্চ নিয়ন্ত্রক সংস্থার পক্ষ থেকেও দেয়া হয়েছে নানান নির্দেশনা।

এসব নির্দেশনার ব্যাপারে খানিক সন্দিহানই সাকিব। তিনি চাইছেন আইসিসির পক্ষ থেকে আরও স্বচ্ছভাবে বর্ণনা করা হোক নির্দেশনাগুলো। কেননা ক্রিকেট মাঠে সামাজিক দূরত্ব নিশ্চিত করা খুবই কঠিন ব্যাপার।

তিনি বলেন, আমরা এখন শুনতে পাচ্ছি যে, করোনাভাইরাস ১২ ফুট দূরেও সংক্রমিত করতে পারে, তিন বা ছয় ফুট নয়। তার মানে দুজন ব্যাটসম্যান ওভার শেষে কথা বলতে পারবে না? তারা নিজেদের প্রান্তেই দাঁড়িয়ে থাকবে? মাঠে কোন দর্শক থাকবে না? উইকেটরক্ষকরা আরও দূরে গিয়ে দাঁড়াবে? ক্লোজ ইন ফিল্ডারদের ক্ষেত্রেই বা কী হবে?

সাকিবের আশা, কোনধরনের ঝুঁকি নিতে যাবে না আইসিসি, আমার মনে হয় না, পুরোপুরি নিশ্চিত হওয়ার আগে আইসিসি কোন ঝুঁকি নেবে। বিষয়টা যাইহোক, জীবন সবার আগে। আমি নিশ্চিত আইসিসিও নিরাপত্তার কথাই আগে দেখবে।

আর/০৮:১৪/২৪ মে



Source link

Facebook Comments

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!